শর্হীদ কর্নেল তাহেরের ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় দলের সাধারণ সম্পাদক কর্তৃক উপস্থাপিত বক্তব্য

বিচারের রায়:

শহীদ কর্নেল আবু তাহের বীরউত্তম হত্যার বিচারের বৈধতা নিয়ে ৪টি রিট আবেদনের প্রেক্ষাপটে সম্প্রতি হাইকোর্টের এক রায়ে বলা হয়েছে যে, জেনারেল জিয়ার পরিকল্পনায় বিচারের নামে কর্নেল তাহেরকে ঠান্ডা মাথায় হত্যা করা হয়রায়ে তাহেরকে শহীদের মর্যাদা দানের পাশাপাশি বিচারকদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা করার নির্দেশ দেয়া হয়

সামরিক আদালতের এ বিচারের ফলে যারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন তাদের ক্ষতিপূরণ দানের বিষয়টিও বিবেচনা করতে বলেছে হাইকোর্ট

আদালত বলেছে, তাহেরকে যে আইনে মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়েছে তখন সেই আইনে মৃত্যুদন্ডাদেশ দেয়ার কোনো বিধান ছিলো নাএই বিধান করা হয়েছে তাঁর ফাঁসির রায় কার্যকর করার পর ৩১ শে অক্টোবর ১৯৭৬ (রায় প্রদানের ১৪ দিন পর)আইনগতভাবে ঐ দন্ড ছিলো অবৈধএছাড়া বিচারের সময় আদালতের সামনে এজাহার বা অভিযোগপত্র ছিলো নাএসব বিবেচনায় ঐ আদালত ও তার কার্যক্রম ছিলো অবৈধ

Read more...
 
২১ জুলাই ২০১১ শহীদ কর্নেল আবু তাহের বীর উত্তমের ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী
উচ্চ আদালতের সামপ্রতিক রায়ের প্রেক্ষাপটে গণতন্ত্রের সংগ্রাম শক্তিশালী করার লক্ষ্যে জাসদ শহীদ কর্নেল আবু তাহের বীর উত্তমের ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করবে।

এ উপলক্ষ্যে সারাদেশে ২১ জুলাই সকালে কর্নেল তাহেরের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান এবং বিকালে আলোচনা সভা অনুষ্ঠানের জন্য দলের সাধারণ সম্পাদক জনাব শরীফ নূরুল আম্বিয়া জেলা কমিটির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসাবে ২০ জুলাই বুধবার বিকাল ৪ টায় ঢাকা মহানগর নাট্যমঞ্চে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ আলোচনা সভায় বিশিষ্ট রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, বুদ্ধিজীবী এবং আইনজীবীগণ অংশগ্রহণ করবেন।

২১ জুলাই বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় শহীদ কর্নেল তাহের মিলনায়তনে শহীদ কর্নেল আবু তাহের বীর উত্তমের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান এবং দুপুরে নেত্রকোনা জেলার কাজলায় তাহেরের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। জাসদের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ এবং ময়মনসিংহ জেলা জাসদের নেতৃবৃন্দ এ শ্রদ্ধা নিদেদন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করবেন।
 
সংবিধান সংশোধন প্রসঙ্গে প্রস্তাব

সংবিধান প্রণয়ন ও সংবিধান সংশোধন এক বিষয় নয়যে কোন দেশে তাদের প্রণীত সংবিধান সময়ে সময়ে সংশোধন করা হয় যুগের চাহিদা অনুযায়ী ও বিরাজিত অপূর্ণতাকে আরো পূর্ণতা দান করতে

 

যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান গৃহিত হয় ১৭৮৭ সালে এবং তা কার্যকর হয় ১৭৮৯ সালেসংবিধান কার্যকর হওয়ার সময় মাত্র ৭ টি অনুচ্ছেদ ছিল এবং তা ৯ টি পাতায় লিপিবদ্ধ হয়  ২১১ বছরে (১৭৮৯-২০০০ সাল) ২৬ বার সংবিধান সংশোধন হয় এবং নতুন ২০ টি অনুচ্ছেদ যুক্ত হয়এই ২৬ টি সংশোধনীর ১০টি প্রথম ১০ বছরে হয়

Read more...
 
«StartPrev12345678NextEnd»

Page 8 of 8
 
Profile

Hasanul Haq Inu MP হাসানুল হক ইনু এমপি

সভাপতি

Sharif Nururl Ambiaশরীফ নূরুল আম্বিয়া

সাধারণ সম্পাদক